পেকুয়ায় অপকর্মের অভিযোগ যুবককে গণোলাই দিয়েছে এলাকাবাসী

পেকুয়া প্রতিনিধি:
কক্সবাজারের পেকুয়ায় নানা ধরনের অপকর্মের অভিযোগে এক যুবককে গণধোলাই দিয়েছে এলাকাবাসী। অত:পর পেকুয়া থানা পুলিশকে সোপর্দ করা হয়েছে। মোচলেকা নিয়ে পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

১২ জুলাই (রবিবার) রাত ১০ টার দিকে মগনামা বাজারপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় ও জনপ্রতিনিধি সুত্রে জানা যায়, পাশর্বর্তী ইউনিয়ন বারবাকিয়া ইউনিয়নের ফাঁসিয়াখালী গ্রামের ছাবের আহমদের পুত্র মোসাদ্দেকের সাথে মগনামা ইউনিয়নের বাজারপাড়া গ্রামের আবু তাহেরের পুত্র বেলী আক্তারের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে মোসাদ্দেক স্ত্রীর বাড়িতে রাতযাপন করে আসতেছে। ওই গ্রামের সিরাজদৌল্লাহ ও মোহাম্মদ সাইফুল জানান, ওই এলাকায় মোসাদ্দেক বিভিন্ন ধরনের অপকর্মে জড়িয়ে পড়ে। এমনকি মোবাইল চুরি ও ইয়াবা সেবন করা তার নিত্য নৈমিত্তিক কাজ।

বাজার পাড়ার নুরুল ইসলাম সওদাগর জানান, সে দু’একদিন আগে সাইক্লোন সেন্টারের কাজে নিয়োজিত শ্রমিকের মোবাইল চুরি করে। তাছাড়া সে ইয়াবা সেবন করে। তিনি আরো জানান, তার বাড়িতে বিভিন্ন ধরনের বখাটে লোকজন আসা যাওয়া করে। সেখানে তার স্ত্রীসহ মিলে তাদের নিকট থেকে সর্বস্ব ছিনিয়ে নেয়। এ ধরনের অপরাধের মাত্রা বেড়ে গেলে এলাকার লোকজন তাকে ধরে নিয়ে এসে গণধোলাই দেয়। পরে পেকুয়া থানা পুলিশকে খবর দেয়। পেকুয়া থানার এস,আই দিদারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সেখানে গিয়ে তার নিকট থেকে মোচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়।

অভিযুক্ত মাদু মেম্বার জানান, ওই যুবক মোবাইল চুরি, টাকা ছিনতাই, ইয়াবা সেবন, ইয়াবা বিক্রি করে সমাজকে কলুষিত করে ফেলে। এলাকার লোকজন অতিষ্ট হয়ে তাকে গণধোলাই দিয়েছে। এরপরও আমার বিরুদ্ধে নানা ধরনের পত্র পত্রিকায় ও বিভিন্ন অনলাইনে মিথ্যা সংবাদ ছাপানো হয়েছে। আমি এর প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই। সংবাদ কর্মীরা এলাকায় সুষ্টু তদন্ত করে সত্যিকার সংবাদ ছাপানোর জন্য আমি অনুরোধ করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *