পেকুয়ায় সিএনজি সংগঠনের অফিস ও শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুরের প্রতিবাদে  সংবাদ সম্মেলন

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ

পেকুয়ায় সিএনজি অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের অফিস দখল চক্রান্তের বিরুদ্ধে  পেকুয়া বাজারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন সংগঠনের সভাপতি নাছির উদ্দিন।
২৮শে অক্টোবর বুধবার বিকাল ৪টায় পেকুয়া বাজারের অবস্থিত কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জসিম উদ্দিন, মোঃ আলী, মোহাম্মদ হোছাইনের উপস্থিতিতে নাছির উদ্দিন লিখিত বক্তব্যে বলেন, আজিম, জসিম, জয়নাল, হারুণ ও শওকত সিএনজি সংগঠনের কেউ নয়। তারা আগেও বেশ কয়েকবার স্বঘোষিত সিএনজি শ্রমিক দাবী করে চাঁদা দাবী করেছিল নয়তো সংগঠনের অফিস দখল করবে বলে হুমকি দিয়ে আসছিল। এ নিয়ে আমি তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করেছি যা আদালতে বিচারাধীন।  এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার দুপুরে আজিম,জসিম বিএনপির চিহ্নিত ক্যাডার হারুণ ও শওকতসহ শতাধীক বহিরাগত সন্ত্রাসী নিয়ে অফিস দখলের জন্য সংগঠনের অফিসে ঢুকে টাঙ্গানো জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাংচুর করে এবং অফিসে অবস্থানরত জসিম ও মোঃ আলীকে বেধড়ক পিটিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে আমরা অফিসে এসে দেখতে পায় বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর অফিসের ফ্লোরে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে রয়েছে। তাদের এহেন কর্মকান্ডে হতবিহ্বল হয়ে প্রশাসনসহ দেশবাসীকে জানাতে আপনারা সাংবাদিকদের শরনাপন্ন হয়েছি। বহিরাগত ঐসমস্ত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আমরা মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছি। তারা শ্রমিকের নাম ব্যবহার করে গত ২৬ শে অক্টোবর নন্দীর পাড়ায় মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় একজন সিএনজি চালক মারা যায়। একই সময়ে পেকুয়া বাজারের পূর্বপাশে একজন মহিলা পথচারী সিএনজির ধাক্কায় গুরুতর আহত হয়ে চমেক হাসপাতালে নেয়ার সময় মারা যায়। মহিলার মৃত্যুর ঘটনায় ঐ সিএনজি চালককে চট্রগ্রামের পাঁচলাইশ থানা পুলিশ আটক করে। এ বিষয়ে সুরাহার জন্য আমি চট্রগ্রামে যাই। আর নন্দীর পাড়ায় দূর্ঘটনায় আহত আবু তালেবের পরিবারের কাছে আমি সংগঠনের কয়েকজন নেতাকে পাটাই। এরপরও তারা ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের জন্য পরিকল্পিত এ হামলা চালায়। সুপ্রিয় সাংবাদিক ভাইয়েরা আপনাদের কাছে আমার প্রশ্ন যদিও আমার ভুল হয়ে থাকে তাহলে আমার ক্ষতি করতে পারত। কিন্তু অফিসে রক্ষিত বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি কেন ভাংচুর করল। আমাদের অফিসে রক্ষিত ছবি ভাংচুরকারীদের অনতিবিলম্বে গ্রেফতার করা না হলে সংগঠনের শ্রমিকেরা সম্মেলিতভাবে তাদেরকে প্রতিরোধ করতে বাধ্য হব।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের সহসভাপতি নুরুল আবছার, সহসাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবদীন, প্রবীণ শ্রমিক শাহনেওয়াজ, অফিস সচিব আলী হোসেন, লাইনম্যান লিটন, মির্জা বাহাদুর, শাহাদত, আঁছু, মোক্তার ও আবু হানিফ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *