পেকুয়ায় আওয়ামীলীগ নেতার ৪বছরের শিশু কন্যাকে গলা টিপে হত্যার চেষ্টা

পেকুয়া প্রতিনিধি।

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলা বারবাকিয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দীনের চার বছরের শিশু কন্যা সায়মাকে গলা টিপে হত্যার সেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।
প্রতিবেশি আবু শামার সস্ত্রী পারভিন আক্তারের বিরুদ্ধে।

শুক্রুবার (১৩ নভেম্বর)  সন্ধা ৬ টার দিকে বারবাকিয়া ইউনিয়নের নতুন পাড়া মহিউদ্দীনের বাড়ি পাশে রাস্তায় এই ঘটনা ঘটে।

শিশুদের খেললার সময় প্রতিবেশি প্রবাসী আবুল শামার ছেলে শিশু ও সায়মার সাথে গড়মিল হলে আবুল শামার স্ত্রী পারভিন আক্তার এসে শিশু সায়মাকে চড়,তাপ্পুর মেরে এক পর্যায়ে গলা টিপে ধরে মাঠিতে লুটিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে প্রত্যক্ষদর্শীরা ও স্থানীয়রা দেখে পেলায় পারভিন আক্তার সায়মাকে রেখে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী তাঁকে উদ্ধার করে তাঁর মায়ের কাছে পাঠিয়ে দেন।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়,ভয়ে ও আতংকে আছে, সায়মার ভিতরে একটা ভয়ে কাজ করছে শিশুটি যে, কোন মানুষ দেখলে ভয়ে কাঁনাকাটি করতে থাকে,তার মানসিক ভাবে ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানায়, আবুল শামার শিশু ও মহিউদ্দীনের শিশু কন্যা সায়মা এক সাথে খেলা করতেছে এক পর্যায়ে দুই শিশুর মাধ্যে ঝগড়া লেগে, এটা দেখতে পেয়ে পারভিন আক্তার এসে সায়মাকে চড়,তাপ্পুর মেড়ে গলা টিপে মাটিতে লুটিয়ে রাখে স্থানীয় প্রতিবেশিরা দেখতে পেলে সেই দ্রুত পালিয়ে যায়।

এই বিষয়ে সয়মার বাবা বারবাকিয়া ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারাণ সম্পাদক মহিউদ্দীন বলেন, আমার প্রতিবেশি পারভিন আক্তার আমার শিশু কন্যা সায়মাকে চড়,তাপ্পুর মেড়েছে ও গলা টিপে হত্যার চেষ্টা করেছে,আমি প্রশাসেনের কাছে সুস্থ বিচার কামনা করি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *